Friday , August 20 2021

তিস্তার পানি বিপদসীমার ২২ সেঃমিঃ উপরে

নিজস্ব প্রতিবেদক:নীলফামারীর ডালিয়া পয়েন্টে তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ২২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় ডিমলা উপজেলার খগাখড়িবাড়ী,টেপাখড়িবাড়ী,পূর্বছাতনাই ও খালিশাচাপানী ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল সহ ১৫টি চর প্লাবিত হয়ে বন্যার সৃষ্টি হয়েছে।এতে প্রায় পাঁচ হাজারের বেশি পরিবারের বাড়িতে পানি ঢুকেছে।পানি পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে তিস্তা ব্যারাজের সব কটি (৪৪) জলকপাট খুলে রাখা হয়েছে।

আজ (বৃহস্পতিবার)সকাল থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ডালিয়া পয়েন্টে তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমার ১৬ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়।এরপর সন্ধ্যা ৬টা থেকে বিপৎসীমার ২২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ড(পাউবো) বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আসফাউদদৌলা এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, ‘উজানে ভারতের দোমোহানি পয়েন্টে সন্ধ্যা পর্যন্ত নদীর পানি বৃদ্ধি রয়েছে। দোমোহানি পয়েন্ট থেকে পানির ওই ঢল তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে আসতে কমপক্ষে ৬ ঘণ্টা সময় লাগবে। ওই ছয় ঘণ্টার ব্যবধানে তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে নদীর পানি আরও বৃদ্ধি পাবে।’

এদিকে ভারতের কেন্দ্রীয় পানি কমিশনের ওয়েব সাইটে দেখা যায়, দোমোহানি পয়েন্টে গেল ২৪ ঘণ্টায় ৯৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে।

ডিমলা উপজেলার পূর্ব ছাতনাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ খাঁন বলেন, ‘তিস্তা নদীর পানি বেড়ে ঝাড়সিংহেরশ্বর ও পূর্ব ছাতনাই গ্রামের প্রায় এক হাজার পরিবারের বাড়িঘরে পুনরায় পানি প্রবেশ করেছে।’

এদিকে ডিমলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়শ্রী রানী রায় জানান, ‘ঝুনাগাছ চাপানী ইউনিয়নে পানিবন্দিদের সংখ্যা বেশি হওয়ায় সেখানে গত সপ্তাহে ২৫০ প্যাকেট শুকনো খাবার বিতরণ করেছেন। শুক্রবার সেখানে চাল দেওয়া হবে।’

Check Also

শাহজাদপুর কৈজুরী ইউনিয়নে বন্যার্ত পরিবারের মাঝে ত্রান বিতরন

এইচ এম আলাউদ্দিন,সিরাজগঞ্জ সংবাদদিতা:সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর কৈজুরী ইউনিয়নে বন্যায় ঘরবন্ধী ও কর্মহীন হয়ে পরা ২৫০ টি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *